• শনিবার   ৩০ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৭

  • || ০৭ শাওয়াল ১৪৪১

আমার রাজশাহী
১৫

কৃষকের ধান কেটে মাড়াই করে দিচ্ছে ছাত্রলীগ

ডেস্ক নিউজ

প্রকাশিত: ২১ এপ্রিল ২০২০  

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে ধান কাটতে না পারা গাজীপুরের কালীগঞ্জের কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছে স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। করোনা পরিস্থিতিতে ধান কাটার শ্রমিক না পাওয়ায় বর্তমানে ছাত্রলীগের স্থানীয় নেতাকর্মীরাই কৃষকদের ভরসা। কৃষকের ধান কাটা, বাড়ি নেয়া ও মাড়াই সবই করছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) সকাল থেকে উপজেলা, পৌর ও বিভিন্ন ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে ধান কাটা শুরু হয়। তবে দেশের এই সংকটময় মূহূর্তে বিনা পারিশ্রমিকে স্বেচ্ছাশ্রমে কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে পেরে ছাত্রলীগ যেমন খুশি, তেমনি ধান কেটে দেয়ায় খুশি এলাকাবাসী ও কৃষকরাও।
 
কালীগঞ্জ পৌর এলাকার বড়নগর গ্রামের কৃষক কামাল হোসেন বলেন, ধান কাটার সময় সাধারণত ৪শ থেকে ৫শ টাকা পারিশ্রমিকে শ্রমিক পাওয়া যেত। করোনা পরিস্থিতিতে এক হাজার টাকায়ও শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না। তাই পাকা ধান নিয়ে চিন্তিত ছিলাম। কিন্তু আমাদের এই সংকটময় মূহূর্তে বিনা পারিশ্রমিকে স্বেচ্ছাশ্রমে স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ধান কেটে বাড়ি নিয়ে তা মাড়াই করে দিচ্ছে।

একই কথা বলেন পৌর এলাকার চান্দাইয়া গ্রামের কৃষক রাধে শ্যাম দাস।

কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি পরিমল চন্দ্র ঘোষ বলেন, ধান রোপণ ও ধান কাটার সময় কৃষকরা এক ধরনের শ্রমিক সংকটে ভোগেন। করোনা পরিস্থিতিতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছে। মেহের আফরোজ চুমকি এমপির নির্দেশনায় ছাত্রলীগ ধান কাটছে, মাথায় করে বাড়ি নিচ্ছে আবার মাড়াই করছে। এটাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ছাত্রলীগ।
 
পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আলী-আল-রাফু অমিত বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে কালীগঞ্জে শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। শ্রমিক না পাওয়ায় নিজ জমির পাকা ধান কাটতে পারছে না কৃষক। তাই সকাল থেকে পৌর এলাকার বিভিন্ন ওয়ার্ড ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে ধান কাটতে সহযোগিতা করছি। এ কার্যক্রম কৃষকরা ধান ঘরে না তোলা পর্যন্ত চলবে বলেও জানান তিনি।

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর মোল্লা ও সাধারণ সম্পাদক ওয়াহিদ হাসান জানান, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির মহিলা বিষয়ক সম্পাদক কালীগঞ্জের মেহের আফরোজ চুমকি এমপি ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনা অনুযায়ী উপজেলার অন্তর্গত সকল সাংগঠনিক ইউনিট এবং কর্মী সমর্থকরা নিজ নিজ এলাকায় কৃষকদের ধান কাটা, বাড়ি নেয়া ও মাড়াই করায় সহযোগিতা করছে।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি এমপি বলেন, বাংলাদেশের সকল সংকটেই ছাত্রলীগ এগিয়ে এসেছে। আর এ দেশের ইতিহাস সে কথাই বলে। দেশের এই করোনা মহামারিরতে স্থানীয় কৃষকদের সহযোগিতায় উপজেলা, পৌর, ইউনিয়ন ও বিভিন্ন ওয়ার্ড ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এগিয়ে আসছে, যা আমাদের আশার আলো দেখায়।

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী
রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর