• রোববার   ৩১ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪২৭

  • || ০৮ শাওয়াল ১৪৪১

আমার রাজশাহী
১৪

ত্রাণ দেয়ার কথা বলে শ্রমিক দল নেতাদের চাঁদাবাজি

ডেস্ক নিউজ

প্রকাশিত: ২১ এপ্রিল ২০২০  

করোনাভাইরাসের চলমান দুর্যোগে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে ৫ হাজার টাকা করে সহায়তা এনে দেবার কথা বলে জনপ্রতি একশ থেকে দেড়শ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে বিএনপির সহযোগী সংগঠন শ্রমিক দলের মোংলা থানার নেতাদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শ্রমিকরা স্থানীয় প্রশাসনের কাছে অভিযোগ দিয়েছেন। পরে প্রশাসন নির্মাণ শ্রমিক দল নেতাদের ডেকে টাকা ফেরত দিতে নির্দেশ দিয়েছেন।

জানা গেছে, মোংলা বন্দরে কর্মরত প্রায় সাত শতাধিক নির্মাণ (রাজমিস্ত্রি) শ্রমিক করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে বেকার হয়ে পড়েন। এ অবস্থায় শ্রমিক দলের নেতারা বিশেষ করে উপজেলা সাধারণ সম্পাদক শাজাহান ফকির প্রত্যেক শ্রমিককে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে বিকাশের মাধ্যমে ৫ হাজার টাকা করে সহায়তা এনে দেয়ার কথা বলে খরচ বাবদ শ্রমিক প্রতি ১০০ থেকে ১৫০ করে টাকা তোলেন। সেই সঙ্গে নেয়া হয় শ্রমিকদের ভোটার আইডি কার্ডের কপিসহ বিকাশ করা মোবাইল নম্বরও।

কয়েকদিন ধরে ত্রাণ এনে দেয়ার নামে টাকা আদায়ের বিষয়টি নিয়ে কিছু শ্রমিকের মধ্যে সন্দেহ দেখা দেয়। ভুক্তভোগী শ্রমিকরা বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রাহাত মান্নান ও থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইকবাল বাহার চৌধুরীর কাছে অভিযোগ দেয়। পরে ইউএনও ও ওসি মোংলা থানা শ্রমিক দলের সভাপতি দুলাল তালুকদার ও সাধারণ সম্পাদক শাজাহান ফকিরকে ডেকে নিরীহ শ্রমিকদের কাছ থেকে নেয়া টাকা ফেরত দেয়ার নির্দেশ দেন।

তবে এখন পর্যন্ত শ্রমিকদের টাকা ফেরত দেয়া হয়নি বলেও জানান ভুক্তভোগী শ্রমিকেরা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রাহাত মান্নান বলেন, অভিযুক্তদেরকে আইনের আওতায় এনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তাদেরকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী
রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর