• মঙ্গলবার   ২৬ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৭

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪১

আমার রাজশাহী
৭০

মোহনপুরে টিসিবির পণ্য কিনতে মানুষের উপচে পড়া ভীড়

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ৯ এপ্রিল ২০২০  

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে জনসাধারণকে ঘরে অবস্থানের নির্দেশ দিয়েছে সরকার। আর জরুরি প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হলেও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশনা রয়েছে। কিন্তু টিসিবির পণ্য কিনতে গিয়ে তা কোনোভাবেই মানছেন না মানুষ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলা পরিষদ চত্বরে যুব উন্নয়ন অফিসের সামনে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) ট্রাকে করে পণ্য বিক্রি করা হয়। আর ট্রাক থেকে কম মূল্যে তেল, ডাল ও চিনি কিনছেন ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়। টিসিবির পণ্য ডিলারের মাধ্যমে খোলাবাজারে ৮০ টাকা লিটারে সয়াবিন তেল এবং ৫০ টাকা দরে ডাল ও চিনি বিক্রি করছে টিসিবি।

এ সময় দায়িত্বরত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা লোকজনকে বারবার স্মরণ করিয়ে দিচ্ছেন নিরাপদ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে। কিন্তু তাতে কারও কোনো ভ্রূক্ষেপ নেই। কে শুনে কার কথা। লাইনে দাঁড়িয়ে তারা গল্প, হাসাহাসিতেও মেতে ওঠেন। অনেকের মুখে নেই মাস্ক।

উপজেলার যুব উন্নয়ন অফিসের দেখা যায়, টিসিবি পণ্যের পাশে দাঁড়িয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর এক সদস্য ক্রেতাদের দূরত্ব বজায় রাখার অনুরোধ করছেন। তিনি সবার উদ্দেশে বলছেন, আপনারা দূরত্ব বজায় রাখুন। এ এমন একটি রোগ, যা আপনার মাধ্যমে পুরো পরিবারে ছড়িয়ে পড়তে পারে। পুরো পরিবার শেষ হয়ে যেতে পারে আপনার কারণে। কাজেই পরিবারের কথা চিন্তা করে হলেও আপনারা সামাজিক নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন।

টিসিবির পন্য বিক্রেতা মোহনপুরের ডিলার আবুল হোসেন বলেন, বার বার তাদের দূরত্ব বজায় রেখে দাঁড়াতে বলছি। তারা আমাদের কথা পাত্তাই দিচ্ছেন না। একজন আরেকজনের গায়ে ঘেঁষে দাঁড়াচ্ছেন। আমরা আর কি করতে পারি?

ধুরইল গ্রাম থেকে টিসিবির পন্য নিতে আসা ষাটোর্ধ বিধবা মহিলা ফিকি বেগম বলেন, আমি সকাল ৯ টায় উপজেলায় এসেছি। এখন বেলা সাড়ে ১১ টা বাজে। এখন পর্যন্ত ডিলার পণ্য বিক্রয় শুরু করেনি । আমার মত উপজেলার বিভিন্ন প্রান্ত হতে এই পণ্য কিনতে এসেছেন অনেকই।

প্রতিদিন একই জায়াগায় বিক্রয় করার কারণে এতো ভিড়। যদি উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে একদিন করে এই পণ্য বিক্রয় করা হতো তাহলে এতো ভীড় হতো না।

স/সা

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী
রাজশাহী বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর