• সোমবার   ০১ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪২৭

  • || ০৮ শাওয়াল ১৪৪১

আমার রাজশাহী
৭৮৬

রাজশাহীতে একদিনে করোনায় আক্রান্ত ৭ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক :

প্রকাশিত: ২৩ মে ২০২০  

রাজশাহীতে প্রতিদিন হুহু করছে বাড়ছে করোনা রোগী। গত বৃহস্পতিবার পাঠানো ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতাল ৫১টি ফলাফলের মধ্যে ৭টিতে করোনার পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে।

এতথ্য নিশ্চিত করেছেন রাজশাহীর সিভিল সার্জন ডা. এনামুল হক। তিনি জানান, গত বৃৃহস্পতিবার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস হাসপাতালে ৫১টি নমুনা পাঠানো হয়।

আজ শনিবার সকাল ১০টায় তারা রিপোর্ট পাঠায়। এর মধ্যে ৭টিতে করোনা পজেটিভ পাওয়া যায়।

তবে এদের মধ্যে রাজশাহী নগরীতে কোন করোনা রোগী পাওয়া যায়নি। জেলার তানোর উপজেলায় করোনা শনাক্ত হয়েছেন ৩ জন। এছাড়া পবা উপজেলায় একজন, পুঠিয়ায় একজন ও দুর্গাপুরের একজনের শনাক্ত হয়েছে। 

এ নিয়ে তানোর উপজেলায় মোট ৯ জনের করোনা শনাক্ত হলো। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন তানোর থানার দুই পুলিশ সদস্য।

তানোরে তিনজন আক্রান্তদের মধ্যে ঢাকা থেকে ফিরেছেন দুইজন। এদের একজনের বাড়ি উপজেলার কোয়েলহাট গ্রামে। অন্যজনের বাড়ি মহাদেবপুর গ্রামে। তারা ঢাকা থেকে ফেরার পর কোয়ারেন্টাইনেই আছেন। এছাড়া এদের মধ্যে তানোর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ওয়ার্ড বয় রয়েছেন।

পুঠিয়ায় নারায়ণগঞ্জ ফেরত এক শ্রমিকের করোনার রিপোর্ট পজেটিভ পাওয়া যায়। এনিয়ে গত ৬দিনে পুঠিয়ায় তিনজনের করোনা শনাক্ত হলো। আক্রান্ত রোগী উপজেলার জিউপাড়া ইউনিয়নের বিলমাড়িয়া গ্রামের চান্দু মন্ডলের ছেলে আবুল কালাম (৪০)। 

তিনি গত ১৭ মে নারায়নগঞ্জ এলাকা থেকে বাড়ি ফিরেছেন। বাড়ি ফেরার পরদিন ১৮ মে তার নমুনা সংগ্রহ করা হয় এবং ২২ মে তার নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজেটিভ আসে। বর্তমানে তাকে হোস আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তার বাড়ি লকডাউন করে দিয়েছে দিয়ে উপজেলা প্রশাসন।

দুর্গাপুরে আক্রান্ত হয়েছেন একজন কিশোর। তিনি সাভারের মোহাম্মদ আলী ইয়াকুব হোসেন স্কুলের দশম শ্রেণী ছাত্র। তার নাম তুষার আহমেদ (১৬)। তার বাবা পোশাকশ্রমিক। 

তিনি গত ১৫ মে গাজীপুর থেকে রাজশাহী আসলে অসুস্থবোধ করলে ১৯ মে নমুনা সংগ্রহ করে স্বাস্থ্যকর্মিরা। বর্তমানে সে উপজেলার কিসমত গণকৈড় গ্রামে নিজ বাসার আইসোলেশনে আছেন।

এছাড়াও পবা উপজেলায় একজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তবে তার কোন তথ্য পাওয়া যায়নি।

রাজশাহীতে এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৯ জন। এর মধ্যে রাজশাহী মহানগরীতে শনাক্ত হয়েছেন পাঁচজন। এদের মধ্যে একজন পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) শুক্রবার রাতে মারা গেছেন। 

এছাড়া বাঘা উপজেলার আরেক বৃদ্ধের প্রাণ গেছে করোনায়। রাজশাহীতে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন আটজন।

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী
রাজশাহী বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর