শুক্রবার   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৯ ১৪২৬   ২৬ জমাদিউস সানি ১৪৪১

আমার রাজশাহী
৩০৯

শীতে গোসলের সময়ে যে ভুল করবেন না

প্রকাশিত: ৭ ডিসেম্বর ২০১৮  

শীতের সময়ে গোসল ও গরমের সময়ে গোসলের মধ্যে বেশ পার্থক্য রয়েছে। শীতকালে গোসলের সময়ে কিছু অতিরিক্ত বিষয় মেনে চলতে হবে। সঠিকে নিয়ম না মানলে আপনার ত্বকের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে। জেনে নিন কী কী ভুল করবেন না।

দীর্ঘক্ষণ হট শাওয়ার নেয়া

ঠাণ্ডা আবহাওয়ায় নিজেকে উষ্ণ রাখার জন্য অন্যতম চমৎকার উপায় হচ্ছে, হট শাওয়ার। কিন্তু ত্বক বিশেষজ্ঞরা বলেন, অনেক সময়ে হট শাওয়ার নিলে ত্বক আরো শুষ্ক হয়ে যায় এবং চুলকানি হতে পারে। শীতে হট শাওয়ার নেয়ার সময় হওয়া উচিত পাঁচ থেকে সাত মিনিট এবং তাপমাত্রা অবশ্যই ৯৯ ডিগ্রির নিচে রাখুন। উচ্চ তাপমাত্রা ত্বকের প্রয়োজনীয় ময়েশ্চার দূর করে এবং ত্বকের প্রাকৃতিক সুরক্ষার আবরণকে ক্ষতিগ্রস্ত করে।

প্রতিদিন গোসল করা

শীতে প্রতিদিন গোসল করাও ত্বকের ক্ষতির কারণ হতে পারে। ত্বক বিশেষজ্ঞদের মতে, অতিরিক্ত গোসল ত্বকে শুষ্কতা ও ইরিটেশন সৃষ্টি করতে পারে এবং এটি এমনকি একজিমাও হতে পারে। প্রাপ্তবয়স্কদের একদিন পরপর গোসল করা উচিত। এটি ত্বকের প্রাকৃতিক ময়েশ্চার দূর করা ছাড়াই ত্বক পরিষ্কার করতে যথেষ্ট।

বার সাবান ব্যবহার করা

প্রচলিত বার সাবান ত্বকের প্রাকৃতিক তেল দূর করতে পারে, যার ফলে শুষ্কতা বা রুক্ষতা সৃষ্টি হয়। এর পরিবর্তে আল্ট্রা ময়েশ্চার বডি ওয়াশ বা কনসেনট্রেটেড বডি ক্লিনজিং ক্রিমের মতো লিকুইড ব্যবহার করতে পারেন।

বেশি ঘনঘন চুল ধোয়া

প্রতিদিন চুল ধোয়ার প্রয়োজন নেই। এর পরিবর্তে একদিন পরপর চুল ধুতে পারেন এবং সপ্তাহে দুইবারের বেশি শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার ব্যবহার না করাই ভাল।

খুব জোরে ঘষে শ্যাম্পু ব্যবহার

শ্যাম্পু যেন মাথার স্কাল্প পর্যন্ত পৌঁছায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। কিন্তু আপনার স্কাল্প এমনভাবে ঘষবেন না। এটি ইরিটেশন, জ্বালা, ইনফেকশন হতে পারে।

ঘষে শরীর মোছা

গোসলের পর তোয়ালে দিয়ে ত্বক ঘষবেন না। এতে ত্বকের ক্ষতি হয়। শরীর মোছার পর ত্বককে হাইড্রেট রাখতে ময়েশ্চারাইজ করতে ভুলবেন না।

ভুলভাবে ময়েশ্চারাইজিং করা

শীতকালীন আবহাওয়ায় আপনার ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করার সব থেকে ভাল সময় হচ্ছে গোসলের পর যখন ত্বক আর্দ্র থাকে। সারাদিনই নির্দিষ্ট সময় পরপর ময়েশ্চারাইজিংও সহায়ক হতে পারে। কিন্তু সব থেকে ভাল ফল পাওয়া যায় ত্বক পরিষ্কার করে ময়েশ্চারাইজ করলে।

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী