রোববার   ০৫ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ২২ ১৪২৬   ১১ শা'বান ১৪৪১

আমার রাজশাহী
৩৫

২০১৯ সালে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে যেসব অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে বাংলাদেশ

ডেস্ক নিউজ

প্রকাশিত: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯  

তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। তথ্যপ্রযুক্তিতে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রার প্রমাণ দেয় আন্তর্জাতিক অঙ্গণে নানা সম্মাননা অর্জন। ২০১৯ সালে সরকারের নানা উদ্যোগ যেমন সারা বিশ্বে প্রশংসিত হয়েছে, তেমনি দেশের তরুণরাও আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় জয়ী হয়ে গৌরব বয়ে এনেছে। এ বছর তথ্যপ্রযুক্তি খাতে আন্তর্জাতিক অঙ্গণ থেকে বাংলাদেশের প্রাপ্তি অনেক। মর্যাদাপূর্ণ কয়েকটি সম্মাননা তুলে ধরা হলো এ প্রতিবেদনে।

ডাব্লিউএসআইএস ফোরামে ৮ অ্যাওয়ার্ড: সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় অনুষ্ঠিত ডাব্লিউএসআইএস অ্যাওয়ার্ড আসরে এ বছর ৮টি পুরস্কার জিতে নেয় বাংলাদেশ। তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিশ্বের সবচেয়ে সম্মানজনক পুরস্কার ‘ওয়ার্ল্ড সামিট অন ইনফরমেশন সোসাইটি (ডাব্লিউএসআইএস) অ্যাওয়ার্ড-২০১৯’ অর্জন করে বাংলাদেশের ৮টি প্রকল্প। 

অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডসে ৩ বিভাগে চ্যাম্পিয়ন: এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের আইসিটি অস্কারখ্যাত ‘অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৯’ আসরে তিন ক্যাটাগরিতে চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। এছাড়াও জিতে নেয় ৫টি মেরিট বা সম্মানজনক পুরস্কার। ভিয়েতনামের হা লং বে-তে অনুষ্ঠিত এবারের অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডসে বাংলাদেশ থেকে অংশ নিয়ে অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৯ আসরে শীর্ষ পুরস্কার (চ্যাম্পিয়ন অ্যাওয়ার্ড) জিতেছে টেকনোলজি (আইওটি) ক্যাটাগরিতে বন্ডস্ট্যাইনের পিজি ট্র্যাকার, ইন্ডাস্ট্রিয়াল (জেনারেল) ক্যাটাগরিতে সূর্যমুখী প্রাণিসেবা এবং কনজ্যুমার (মার্কেটপ্লেস অ্যান্ড রিটেইল) ক্যাটাগরিতে এটুআইয়ের একশপ।

ডব্লিউসিআিইটিতে গ্লোবাল আইসিটি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড: তথ্যপ্রযুক্তির অলিম্পিক খ্যাত ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস অব ইনফরমেশন টেকনোলজির (ডব্লিউসিআিইটি) এবারের ২১তম আয়োজনে ‘গ্লোবাল আইসিটি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০১৯’ অর্জন করে বাংলাদেশ। আর্মেনিয়ার রাজধানী ইয়েরেভানে অনুষ্ঠিত ডব্লিউসিআিইটি-তে এ গৌরব অর্জন করে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। সম্মেলনে পাঁচটি বিভাগের মধ্যে সবচেয়ে গৌরবোজ্জ্বল সম্মাননা চেয়ারম্যান অ্যাওয়ার্ডসও পেয়েছে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ।

অ্যাসোসিওতে ৩ অ্যাওয়ার্ড: এশিয়ার অন্যতম বৃহৎত্তম তথ্যপ্রযুক্তি সংগঠন এশিয়ান-ওশেনিয়ান কম্পিউটিং ইন্ডাস্ট্রি অর্গানাইজেশন (অ্যাসোসিও) থেকে এ বছর তিনটি অ্যাওয়ার্ড জিতেছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের ৩টি প্রতিষ্ঠান আন্তর্জাতিক এই সম্মাননা পেয়েছে। আইসিটি এডুকেশনে অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের ‘উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমি প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্প (আইডিয়া)’ প্রকল্প। আউটস্ট্যান্ডিং আইসিটি কোম্পানি অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে ডাটাসফট ম্যানুফ্যাকচারিং অ্যান্ড অ্যাসেম্বিলিং ইনকরপোরেশন লিমিটেড। এছাড়াও আউটস্ট্যান্ডিং ইউজার অর্গানাইজেশন অ্যাওয়ার্ড জিতেছে ই-জেনারেশন।

আইটিইউ টেলিকম ওয়ার্ল্ডে ২ অ্যাওয়ার্ড: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির জন্য জাতিসংঘের বিশেষায়িত সংস্থা আইটিইউ (আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ ইউনিয়ন)। হাঙ্গেরির রাজধানী বুদাপেস্টে এ বছর অনুষ্ঠিত আইটিইউ টেলিকম ওয়ার্ল্ড ২০১৯-এ বাংলাদেশ দুটি পুরস্কার জিতেছে টেলিযোগাযোগ খাত ও ডিজিটাইজেশনে সাফল্যের স্বীকৃতি হিসেবে। পুরস্কার দুটি হলো- ‘দ্য আইটিইউ টেলিকম ওয়ার্ল্ড অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ সার্টিফিকেট এপ্রিসিয়েশন’ ও ‘দ্য আইটিইউ টেলিকম ওয়ার্ল্ড অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ রিকগনিশন অব এক্সিলেন্স’। সেন্ট্রাল বায়োমেট্রিক ভেরিফিকেশন মনিটরিং প্ল্যাটফর্ম (সিবিভিএমপি) উদ্ভাবনের জন্য ‘দ্য আইটিইউ টেলিকম ওয়ার্ল্ড অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ সার্টিফিকেট এপ্রিসিয়েশন’ অ্যাওয়ার্ড জিতে নেয় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

ডিসিডি এপিএসি অ্যাওয়ার্ড: গাজীপুরের কালিয়াকৈরে টায়ার ফোর মানের জাতীয় ডাটা সেন্টার স্থাপন করায় এ বছর ‘ডিসিডি এপিএসি অ্যাওয়ার্ড ২০১৯’ জিতেছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের ‘৪ টায়ার জাতীয় ডাটা সেন্টার (৪টিডিসি)’ প্রকল্পটিকে ডাটা সেন্টার কনস্ট্রাকশন ক্যাটাগরিতে এ পুরস্কার দিয়েছে যুক্তরাজ্যের ডাটা সেন্টার ডায়নামিকস (ডিসিডি)।

আইটেক্সে ১টি গোল্ড এবং ৪টি সিলভার অ্যাওয়ার্ড: মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিত ইন্টারন্যাশনাল ইনভেনশন, ইনোভেশন অ্যান্ড টেকনোলজি এক্সিবিশন (আইটেক্স)-২০১৯ এ ১টি গোল্ড এবং ৪টি সিলভার অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছে বাংলাদেশ। ‘বেস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইনোভেশন’ ক্যাটাগরিতে বিশ্বের ২১টি দেশের মধ্যে গোল্ড অ্যাওয়ার্ড অজর্ন করে নেয় সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আওতাধীন এটুআই-এর ‘একশপ’ প্রকল্প। এছাড়া আইটেক্স ২০১৯ এ মোট ১৫টি ক্যাটাগরির মধ্যে আরো ৪টি ক্যাটাগরিতে এটুআই-এর ইনোভেশন ল্যাবের প্রকল্পগুলো সিলভার অ্যাওয়ার্ড অজর্ন করে।

গোভইনসাইডার ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড: এ বছর ‘গোভইনসাইডার ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড-২০০৯’ আসরে ‘গোবইনসাইডার এশিয়ার বেস্ট সিটিজেন এঙ্গেজমেন্ট প্রজেক্ট’ ক্যাটাগরিতে বিজয়ী হয়েছে বাংলাদেশ। থাইল্যান্ডের ব্যাংককের জাতিসংঘ সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে এটুআই-এর কল সেন্টার ‘৩৩৩’ প্রকল্পটিকে ‘গোভইনসাইডার ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড-২০০৯’ প্রদান করা হয়।

ওপেন গ্রুপ কোচি অ্যাওয়ার্ড: এ বছর গ্লোবাল কনসোর্টিয়াম ওপেন গ্রুপের দুটি অ্যাওয়ার্ড অর্জন করে বাংলাদেশ। ভারতের কেরালা রাজ্যে অনুষ্ঠিত এবারের ‘ওপেন গ্রুপ কচি অ্যাওয়ার্ড ২০১৯’ আসরে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের অনলাইন রিক্রুটমেন্ট সিস্টেম ‘ই-রিক্রুটমেন্ট’ এবং ভৌগোলিক স্থানজনিত তথ্য ও ডেটা আদান-প্রদানের ‘জিওড্যাশ’ প্ল্যাটফর্ম এই অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে।

নাসার প্রতিযোগিতায় বিশ্বচ্যাম্পিয়ন: এ বছর প্রথমবারের মতো মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসার স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ প্রতিযোগিতায় ১৩৯৫টি দলকে হারিয়ে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের খেতাব অর্জন করে নেয় বাংলাদেশ। বেস্ট ইউজ অব ডেটা ক্যাটাগরিতে শীর্ষ চারে স্থান করে নেয়া ক্যালিফোর্নিয়া, কুয়ালালামপুর আর জাপানের দলকে হারিয়ে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দল ‘টিম অলিক’। টিম অলিকের তৈরি ‘লুনার ভিআর প্রজেক্ট’ নামের ভার্চুয়াল রিয়েলিটি অ্যাপটি বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অ্যাওয়ার্ড জিতে নেয়।

আন্তর্জাতিক জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডে রেকর্ড সাফল্য: এ বছর আন্তর্জাতিক জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশ চারটি রৌপ্য ও দুটি ব্রোঞ্জপদক পেয়েছে। কাতারের রাজধানী দোহায় অনুষ্ঠিত ১৬তম এই আন্তর্জাতিক এই বিজ্ঞান প্রতিযোগিতায় ৬ সদস্যের বাংলাদেশ দল অংশগ্রহণ করে প্রত্যেকেই পদক জয়ের গৌরব অর্জন করে। বাংলাদেশের পক্ষে রৌপ্যপদক জয় করেন বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ পাবলিক কলেজের অভিষেক মজুমদার সন্তু, বরিশাল ক্যাডেট কলেজের মুহতাসিন আল ক্বাফি, মুমিনুন্নিসা সরকারি মহিলা কলেজের কাজী তাসফিয়া জাহিন, ব্লু-বার্ড স্কুল অ্যান্ড কলেজের জাকিয়া তাজনূর চৌধুরী দিয়া। এছাড়া ব্রোঞ্জপদক অর্জন করে ময়মনসিংহ জিলা স্কুলের জুহায়ের মাহদিউল আলম আশফি এবং গ্রীন ফিল্ড ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের আহমেদ আল-জুবায়ের আনাম। উল্লেখ্য, এর আগে চার বছরে বাংলাদেশ দল মোট ৬টি রৌপ্য ও ১১টি ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করেছিল।

আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডে স্বর্ণসহ মোট ১০ পদক: থাইল্যান্ডের চিয়াংমাইয়ে এ বছর অনুষ্ঠিত ২১তম আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডে ১টি স্বর্ণসহ মোট ১০টি পদক পেয়েছে বাংলাদেশ। অনুর্ধ্ব-১৮ বয়সিদের আন্তর্জাতিক এই রোবট প্রতিযোগিতাটি ১৫ সদস্যের বাংলাদেশ দল অংশ নিয়ে এই সাফল্য অর্জন করে। তারা ১টি স্বর্ণ, ২টি রৌপ্য, ৬টি ব্রোঞ্জ ও ১টি কারিগরি পদক পেয়েছে। 

আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশের ব্রোঞ্জ: গতবছর আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে প্রথমবারের মতো স্বর্ণপদক জিতেছিল বাংলাদেশ। ইংল্যান্ডের বাথ শহরে এ বছর অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করে বাংলাদেশ। চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট ইংলিশ স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী আহমেদ জাওয়াদ চৌধুরী এ কৃতিত্ব অর্জন করে। 

আন্তর্জাতিক জীববিজ্ঞান অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশের ৩ ব্রোঞ্জ: হাঙ্গেরির জেগেদ বিশ্ববিদ্যালয়ে এ বছর অনুষ্ঠিত ৩০তম আন্তর্জাতিক জীববিজ্ঞান অলিম্পিয়াডে তিনটি ব্রোঞ্জ পদক জিতেছে বাংলাদেশ। পদক বিজয়ী বাংলাদেশ দলের তিন সদস্য হলেন অদ্বিতীয় নাগ, রাফসান রহমান রায়ান ও মাধব বৈদ্যন শঙ্করণ।

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী
এই বিভাগের আরো খবর