শনিবার   ০৪ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ২১ ১৪২৬   ১০ শা'বান ১৪৪১

আমার রাজশাহী
৩৬

আবারো জাপান টোব্যাকোকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা 

ডেস্ক নিউজ

প্রকাশিত: ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

রাজশাহী ও সিরাজগঞ্জের পর এবার কুড়িগ্রামে ‘জাপান টোব্যাকো ইন্টারন্যাশনাল-জেটিআই’-কে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় বিপুল পরিমাণ অবৈধ বিজ্ঞাপন সামগ্রীও (চার কার্টুন বিজ্ঞাপন সামগ্রী, র‌্যাক ৮টি, ১৭ টি গ্লাসবোর্ড ইত্যাদি) জব্দ করা হয়।

গতকাল রবিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় কুড়িগ্রাম শহরের নাজিরপাড়া এলাকায় অবস্থিত ‘জেটিআই’ এর ডিপোতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এ জরিমানা ও অবৈধ বিজ্ঞাপন সামগ্রী জব্দ করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার অভিজিত চৌধুরী। 

এর আগে গত ২৬ জানুয়ারি সিরাজগঞ্জে জাপান টোব্যাকোর আঞ্চলিক ডিপোতে অভিযান চালিয়ে দুই লাখ টাকা এবং গত বছরের ১৭ জুলাই রাজশাহীতে একই কোম্পানিটির ডিপোতে অভিযান চালিয়ে এক লাখ টাকা জরিমানাসহ লাখ লাখ টাকার অবৈধ বিজ্ঞাপন সামগ্রী জব্দ করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ধূমপানে আকৃষ্ট করতে ‘জাপান টোব্যাকো ইন্টারন্যাশনাল-জেটিআই’ এর কুড়িগ্রাগের ডিপোতে বিপুল পরিমাণ অবৈধ বিজ্ঞাপন সামগ্রী মজুদ রয়েছে- এমন তথ্য পেয়ে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার অভিজিত চৌধুরী আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে সঙ্গে নিয়ে রবিবার সন্ধ্যায় ওই ডিপোতে অভিযান চালান। অভিযান চলাকালে বিপুল পরিমাণ তামাকপণ্যের অবৈধ এসব বিজ্ঞাপন সামগ্রী জব্দ করেন। পরে সেগুলো জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ে নিয়ে ধ্বংস করা হয়। অভিযান চালাকালে জেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর (ডিএসআই) জহুরুল ইসলামসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 
ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অভিজিত চৌধুরী বলেন, ‘ডিপোতে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ অবৈধ বিজ্ঞাপন সামগ্রী পাওয়া গেছে। যা ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য (নিয়ন্ত্রণ) আইন-২০০৫ এর স্পষ্ট লঙ্ঘন। আইন অমান্য করে অবৈধ বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের দায়ে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের ৫ এর (ছ) ধারা লঙ্ঘন করায় ‘জেটিআই’ কোম্পানিকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করে সাবধান করা হয়েছে।’

ভবিষ্যতে এ আইন লঙ্ঘন অবৈধ বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করলে বর্তমান জরিমানার দ্বিগুণহারে জরিমানা করা হবে বলেও জানান ভ্রাম্যমাণ আদালতের এই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

এ বিষয়ে উন্নয়ন সংস্থা ‘এ্যাসোসিয়েশন ফর কম্যুনিটি ডেভেলপমেন্ট-এসিডি’র তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের প্রোগ্রাম ম্যানেজার মোস্তফা কামাল বলেন, ‘এসিডি ২০১০ সাল থেকে সরকারের তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের ১৬ জেলায় বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে ভ্রাম্যামাণ আদালত পরিচালনা করায় এসিডির পক্ষ থেকে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসনের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। এভাবে প্রশাসনের সহযোগিতা অব্যাহত থাকলে উত্তরাঞ্চলে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়ন সহজ হবে।’

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী
এই বিভাগের আরো খবর