• সোমবার   ০৬ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৩ ১৪২৬

  • || ১২ শা'বান ১৪৪১

আমার রাজশাহী
৩৮

করোনার জন্য কবিতা

জ.ই. মামুন

প্রকাশিত: ১৪ মার্চ ২০২০  

আমরা পায়খানা করার পর সাবান দিয়ে হাত ধুই না,
পানির বদলে ঢিলা কুলুপ ব্যবহার করি পূণ্য ভেবে।
খাবার আগে আমরা হাত না ধুয়ে লুঙ্গি, গামছা
বা আঁচলে হাত মুছে নিয়ে মনে করি- হয়ে গেলো!

আমরা ভালোমতো দাঁত মাজতে শিখিনি এখনো, আমাদের মুখে এমন গন্ধ যে কাছে যাওয়া যায় না।
কথা বলার সময় আমরা এমনভাবে থুথু ছিটাই যে
কেউ সামনে দাঁড়াতেই পারে না।

আমরা স্টেশনে, অফিসে, হাসপাতালে, সচিবালয়ে এত পানের পিক ফেলি যেন পুরো দেশটা একটা ডাস্টবিন!
আমরা নাকের ময়লা খুঁটে আনি অন্যদের সামনে,
আমরা ব্রণের ভেতরের শাঁস বের করে গন্ধ নেই,
আমরা জনসমক্ষে, অফিসে, লিফটে সশব্দে পাদ দেই,
আমরা জলন্ত বিড়ি সিগারেটের বাট থেকে শুরু করে চকলেট- চিপস- চানাচুরের প্যাকেট
ফেলে দেই এখানে সেখানে, গাড়ির জানালা দিয়ে রাস্তায়।

পথে- ফুটপাতে- অন্যের বাড়ির দেয়ালে, গাছের গোড়ায়
আমরা যখন তখন হিসু করে দেই নির্বিকার, যেন কুকুর।
আমরা শীতকালে ঠাণ্ডার অযুহাতে টানা তিনদিন
গোসল না করে থাকি।
আমাদের বগলের লোমে জমে থাকে
থকথকে ময়লা, ঘাম- দুর্গন্ধ।
আমরা তিন তলার জানালা দিয়ে নিচে ছুঁড়ে ফেলি
বীর্যশুদ্ধ কনডম, বাচ্চার ব্যবহৃত ডায়াপার
কিংবা রক্তমাখা দূষিত স্যানিটারি ন্যাপকিন।

আমাদের স্বাস্থ্য বলতে শুধু খাওয়া,
জীবন বলতে কেবল সন্তান উৎপাদন,
আর বিনোদন বলতে বিদেশি সিরিয়াল, পরচর্চা, কুৎসা।
আমরা পুষ্টি বুঝিনা, পরিচ্ছন্নতা বুঝিনা,
শালীনতা বুঝিনা, স্বাতন্ত্র্য বুঝিনা- শুধু স্বার্থপরতা বুঝি।

সেই আমরা হঠাৎ করোনাভাইরাসের আগমনী সংবাদে
হ্যান্ড স্যানিটাইজার আর মাস্ক খুঁজতে অস্থির হয়ে উঠি!

ও ভাই- ও বোন, মাস্ক তো লাগানোই আছে মুখে,
সেটা খুলুন। প্রাণভরে নিঃশ্বাস নিন, নিজেকে দেখুন।
স্যানিটাইজার লাগবে না, সাবান দিয়ে হাত মুখ ধুয়ে
দাঁত মেজে, গোসল করে, পরিস্কার কাপড় পরে আসুন।
করোনা এমনি চলে যাবে।

লেখক:সিনিয়র সাংবাদিক

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী