বুধবার   ২২ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৮ ১৪২৬   ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

আমার রাজশাহী

চারঘাটে ভেস্তে গেছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওয়েসাইট তৈরির কার্যক্রম

আবুল কালাম আজাদ সনি, চারঘাট

প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০২০  

সারা দেশের মতো রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার ৯৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ডাইনামিক ওয়েবসাইট খোলার জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) পর পর পাঁচবার চিঠি দিলেও টনক নড়েনি প্রতিষ্ঠান প্রধানদের। এখানকার অনেক প্রতিষ্ঠানপ্রধান রাজনৈতিক প্রভাবে ও উদাসীনতায় খোলেননি ওয়েবসাইট। ফলে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে পিছিয়ে পড়ছে চারঘাট উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সুত্রে জানা গেছে, গত বছরের ১২ এপ্রিল মাউশির এফএসপিডি শাখা থেকে সারা দেশের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, টেকনিক্যাল বিদ্যালয়, কলেজ এবং মাদ্রাসায় নিজস্ব ওয়েবসাইট বাধ্যতামূলক করার জন্য সরকারি নির্দেশনা জারি করা হয়। এতে ফলপ্রসূ না হলে আবারও ওই বছরের ৩০ এপ্রিল মাউশির পরিচালক (কলেজ ও প্রশাসন বিভাগ) থেকে একই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে ওয়েবসাইট বাধ্যতামূলক করার জন্য পরিপত্র প্রদান করা হয়। ওই পরিপত্রে গত বছরের ৩০ জুনের মধ্যে ওয়েবসাইড তৈরি করে তা মন্ত্রণালয়কে অবহিত করার জন্য সময় বেঁধে দেয়া হয়।

কিন্তু নির্ধারিত সময়ের দেড় বছরের ৯৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৬২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ওয়েবসাইট তৈরি করেনি। যেসব প্রতিষ্ঠান ওয়েবসাইট খুলেছে তাদেরগুলো বন্ধ রয়েছে, ওপেন হয় না। বিশেষ করে এ উপজেলার ২৬টি মাদ্রাসার ও কারিগরির একটিতেও ওয়েবসাইট খোলা হয়নি। উপজেলার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উদাসীনতার কারণে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ডাইনামিক ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেনি উপজেলার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলো।

চারঘাট উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জয়নাল আবেদীন বলেন, সবগুলো প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট বন্ধ হয়ে গেছে। ওয়েবসাইট তৈরিকারী প্রতিষ্ঠানদের অনিয়ম ও দূর্নীতি কারণে শিক্ষকরা ওয়েবসাইট তৈরিতে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে। এতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট তৈরির কার্যক্রম বাস্তবায়নে সংকট দেখা দিয়েছে বলে জানান তিনি।

 

এমএমআই

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী
এই বিভাগের আরো খবর