• সোমবার   ০১ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪২৭

  • || ০৮ শাওয়াল ১৪৪১

আমার রাজশাহী
৯৩

পুঠিয়ায় নারায়নগঞ্জ ফেরৎ আরেক শ্রমিকের করোনা সনাক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক :

প্রকাশিত: ২৩ মে ২০২০  

রাজশাহীর পুঠিয়ায় নতুন করে নারায়নগঞ্জ ফেরৎ আরো একজন পোশাক শ্রমিকের নমুনায় করোনা সনাক্ত হয়েছে। এই নিয়ে উপজেলায় করোনা রোগির সংখ্যা দাঁড়ালো মোট ৮ জনে। 

গত ৬দিনে নতুন সনাক্ত করা রোগির সংখ্যা তিনজন। ওই পরিবার গুলোকে লকডাউন করে রোগিদের বাড়িতেই আইসোলেশনের রাখা হয়েছে।

তবে আগের ৫ জনকে নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে প্রাথমিক চিকিৎসায় করোনা মুক্ত তাদের পরিবারের লকডাউন তুলে নেয়া হয়েছে। বর্তমানে তারা সুস্থ্য রয়েছেন। 

আজ শনিবার সকাল ১১ টায় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নাজমা আকতার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগি উপজেলার জিউপাড়া ইউনিয়নের বিলমাড়িয়া গ্রামের চান্দু মন্ডলের ছেলে পোশাক শ্রমিক আবুল কালাম (৪০)।

তিনি গত ১৭ মে নারায়নগঞ্জ এলাকা থেকে বাড়ি ফিরেছেন। বাড়ি আসার পরদিন ১৮ মে তার নমুনা সংগ্রহ করা হয় এবং ২২ মে তার নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজেটিভ আসে। 

এর আগে ২১ মে সদর ইউনিয়নের গন্ডগোহালি গ্রামের নারী ও ১৮ মে শিলমাড়িয়া ইউনিয়নের সাধনপুর গ্রামের পুরুষ পোষাক শ্রমিকের করোনা সনাক্ত হয়।

এদিকে করোনা আক্রান্ত ওই রোগিদের নিজ বাড়িতেই আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। আমাদের চিকিৎসক টিম সার্বক্ষনিক তাদের চিকিৎসা সেবা পর্যাবেক্ষন করছেন। 

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওলিউজ্জামান বলেন, গত ৬দিনে নতুন করে ৩জন করোনা আক্রান্ত রোগি সনাক্ত হয়েছেন। তাদের আশেপাশে কয়েকটি বাড়ি লকডাউন করে দেয়া হয়েছে। আর ওই পরিবার গুলোকে সার্বিক খাদ্য সহয়তা নিশ্চিত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১২ এপ্রিল রাজশাহী জেলায় সর্বপ্রথম করোনা রোগি সনাক্ত হয় পুঠিয়া উপজেলার জিউপাড়া-বগুড়াপাড়া গ্রামের একজন পুরুষ পোষাক শ্রমিক। একদিন পর সদর ইউনিয়নের গন্ডগোহালী গ্রামে। গত ১৮ এপ্রিল ভালুকগাছি-নন্দনপুর গ্রামে। 

গত ২০ এপ্রিল তারাপুর ও সৈয়দপুর গ্রামের দু’জনকে সনাক্তকরা হয়। করোনা সনাক্তকারীরা সবাই নারায়নগঞ্জ ও গাজিপুর এলাকা পোষাক শ্রমিকের কাজ করতো।

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী
রাজশাহী বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর