• মঙ্গলবার   ০৭ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৪ ১৪২৬

  • || ১৩ শা'বান ১৪৪১

আমার রাজশাহী
৪০০৬

রাজশাহী ৫: জয়ের ব্যপারে নিশ্চিন্ত আওয়ামী লীগ, গনসংযোগে নেই বিএনপি

প্রকাশিত: ২০ ডিসেম্বর ২০১৮  

পুঠিয়া-দুর্গাপুর নিয়ে গঠিত সংসদীয় আসন রাজশাহী- দলীয় কোন্দলে পিছিয়ে আছে বিএনপি আর অপরদিকে সকল অঙ্গ সংগঠনের সমর্থনে এগিয়ে আওয়ামী লীগ সরেজমিনে দেখা যায়, এই আসনে ধানের শীষের প্রার্থী হওয়া নিয়ে আইনি লড়াইয়ে ব্যস্ত রয়েছেন বিএনপির দুই নেতা- নাদিম মোস্তফা অধ্যাপক নজরুল ইসলাম ফলে তারা উভয়েই রয়েছেন গণসংযোগ সহ সকল প্রচারণার বাইরে এই আসনের সাধারণ মানুষ এবং অধিকাংশ বিএনপি কর্মীরাও জানেন না- কে তাদের দলীয় মনোনীত প্রার্থী! অপরদিকে কর্মীদের সমর্থনে নিয়মিত গণসংযোগ এবং কর্মীসভা করে যাচ্ছেন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী অধ্যাপক ডা. মনসুর রহমান

 

সরেজমিনে পুঠিয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে প্রমাণ পাওয়া যায় যে, বিএনপি এখানে অন্তঃকোন্দলেই জর্জরিত প্রতিনিয়তই ডা. মনসুরের পক্ষে মাইকিং চলছে এলাকায় দু'দিনের বৃষ্টিতে ছিঁড়ে যাওয়া পোস্টার লাগানোর কাজও চলছে বেশ জোরেশোরে তবে দেখা যায়নি নাদিম মোস্তফার পক্ষে কোনো মাইকিং ছিঁড়ে যাওয়া পোস্টারও লাগাতে দেখা যায়নি কর্মীদের

 

জেলা নির্বাচন অফিসের বরাত দিয়ে জানা যায়, ঋণখেলাপি তথ্য গোপনের অভিযোগে নাদিম মোস্তফার মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা পরিস্থিতিতে বিএনপি থেকে পরবর্তীতে চূড়ান্ত মনোনয়ন দেওয়া হয় অধ্যাপক নজরুল ইসলামকে কিন্তু উচ্চ আদালতে রিট করে নাদিম মোস্তফার মনোনয়ন বৈধ হয় পরে কেন্দ্রীয় বিএনপি অধ্যাপক নজরুল ইসলামের মনোনয়ন বাতিল করে নাদিম মোস্তফাকে আবারও চূড়ান্ত মনোনয়ন দেয় অবস্থায় ১২ ডিসেম্বর নাদিম মোস্তফার প্রার্থিতা চ্যালেঞ্জ করে অধ্যাপক নজরুলের ছেলে ব্যারিস্টার আবু বকর সিদ্দিক রাজনসহ তাদের আইনজীবীরা উচ্চ আদালতে রিট করেন গত সোমবার হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ নাদিম মোস্তফার প্রার্থিতা অবৈধ ঘোষণা করেন পরে রুল জারি করে তার পরিবর্তে বিএনপির অপর প্রার্থী জেলা বিএনপির সহসভাপতি নজরুল ইসলামকে বৈধ ঘোষণা করেন তাকে ধানের শীষ প্রতীক বরাদ্দ দেওয়ার জন্য জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন কিন্তু হাইকোর্টের সেই আদেশ এখনও জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে পৌঁছায়নি ফলে নজরুল ইসলাম জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছ থেকে প্রতীক বরাদ্দের অপেক্ষায় দিন গুনছেন  জটিলতম অবস্থায় পুঠিয়া-দুর্গাপুরের তৃণমূল বিএনপির কর্মীরা পড়েছেন উভয় সংকটে অনেকে এখনো দ্বিধা-দ্বন্দ্বে ভুগছেন, কে তাদের আসল প্রার্থী এই বিষয়ে!

 

অপরদিকে, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী অধ্যাপক ডা. মনসুর রহমানের প্রচারণা চলছে পুরোদমেএক প্রশ্নের জবাবে ডা. মনসুর রহমান বলেন, 'বিএনপি প্রতীক নিয়ে নিজেরাই মারামারি করছে তাদের কোনো প্রার্থী মাঠে নেই ভোটাররাও তাদের এমন আচরণে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন'

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী
রাজশাহী বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর