সোমবার   ৩০ মার্চ ২০২০   চৈত্র ১৬ ১৪২৬   ০৫ শা'বান ১৪৪১

আমার রাজশাহী
৭৪৮

শ্রমিক আন্দোলনের রাজপথে কারা ? জাতির অগোচরে নেই কোন কিছুই

প্রকাশিত: ১১ জানুয়ারি ২০১৯  

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শাসনামলে আপনি কোন সুষ্ঠু শ্রমিক আন্দোলন খুঁজে পাবেনা, কেননা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দিনমজুর শ্রমিকদের ন্যায্য মুজুরি বৃদ্ধির কাজটা নিজ উদ্যগে করে থাকেন। বিএনপি জোটের আমলে যেমনি ব্যাগ ভর্তি টাকা নিয়ে বাজারে গেলে পকেট পুরেও বাজার আসতোনা, সেখানে তেমনি দিনমজুর শ্রমিকদের নুন আনতে পান্তা ফুরনোর অবস্থা ছিল। শ্রমিকরা ন্যায্য মুজুরি বলতে শুধু প্রহসনের স্বীকার হতেন। বিশেষ করে শোষণের চরম পর্যায়ে ছিলেন পোশাক শ্রমিকরা। দৈনিক ১২ ঘণ্টা হার ভাঙ্গা পরিশ্রমের পরে অতিরিক্ত মুজুরিতো দূরের কথা মাস শেষে ন্যায্য মুজুরিটাও পেতেননা। কথায় আছে সবারি একদিন নাএকদিন সুদি আসবেই। হ্যাঁ কথাটা সত্যিই বাস্তবে রূপ নিলো। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার গঠনের পর থেকে ঘুচে যায় গার্মেন্টস শ্রমিকদের ভাগ্যের চাকা। তাদের চাহিদার চেয়েও বেশি কিছু তাদের দেয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। আট ঘণ্টা কর্ম দিবস এবং অতিরিক্ত ঘণ্টা হলেই ওভারটাইম, মাতৃত্ব কালীন ছুটি বৃদ্ধি, অবসর সময়ের জন্য অতিরিক্ত বড় অঙ্কের অর্থ প্রদান সহ নানান পদক্ষেপ গ্রহণ করেন তিনি। এবার প্রশ্ন আসে তাহলে কেনো শ্রমিক আন্দোলন ? আসলে যারা শ্রমিকদের শোষণ নিপীড়ন ছাড়া আর কিছুই দিতে পারেননি তারা কিভাবে সহ্য করেবেন শ্রমিকদের সোনালি দিনগুলো ? , বিএনপি জোটেরা যা কল্পনা করতে পারেননি তার ছেয়েও বেশি কিছু পেয়েছেন পোশাক শ্রমিকরা। তাই এমন নগ্ন আন্দোলন পোশাক শ্রমিকরা করতে পারেননা জাতি তা ভালো করেই জানেন। আর এও জানেন বিএনপি জোটে সন্ত্রাসীরাই আন্দোলনের নৈরাজ্য সৃষ্টির লক্ষ্যে রাজপথে অবস্থান নিয়েছেন।

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী
এই বিভাগের আরো খবর