শনিবার   ০৪ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ২১ ১৪২৬   ১০ শা'বান ১৪৪১

আমার রাজশাহী
৭৫৪

‘স্বাধীনতা বিরোধীদের ইন্ধন যোগাতেই রাবির ৫৮ শিক্ষকের বিৃবতি’

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ৫ অক্টোবর ২০১৯  

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম আব্দুস সোবহান ও উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মোহাম্মদ জাকারিয়ার ফোনালাপ প্রসঙ্গে ‘প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের সদস্য’ পরিচয়ে ৫৮ জন শিক্ষকের দেওয়া বিবৃতি প্রকৃতপক্ষে তাতে দলের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। তাঁদের ওই বিবৃতি প্রকারান্তরে স্বাধীনতাবিরোধীদের ইন্ধন যোগানোর অপপ্রয়াস।

আজ শনিবার বিকেলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. এম মজিবুর রহমান স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ দাবি করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়- ‘সম্প্রতি গণমাধ্যমে প্রকাশিত রাবির ৫৮ জন শিক্ষক বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান ঘটনাপ্রবাহ সম্পর্কে বিবৃতি দিয়েছেন। অনভিপ্রেত বিবৃতিটি বিশ্ববিদ্যালয়েল মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজে দৃষ্টিগোচর হয়েছে। এর প্রেক্ষিতে গতকাল দলের আহ্বায়কের সভাপতিত্বে স্টিয়ারিং কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়।  সভায় সিদ্ধান্ত হয়- ৫৮ শিক্ষকের বক্তব্য দলের কোনো বক্তব্য নয়। প্রায় ৭০০ শিক্ষকের সংগঠনের নাম ব্যবহার করে ওই শিক্ষকবৃন্দ যে বিবৃতি দিয়েছেন, তার সাথে দলের কোনো সম্পৃক্ততা নেই।’

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়- ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা কার্যক্রমসহ সামগ্রিক পরিবেশ যখন শান্তিপূর্ণভাবে বিরাজমান সেই মূহুর্তে শিক্ষকদের দলীয় পরিচয় ও দলীয় ব্যানার ব্যবহার করে স্বল্পসংখ্যক শিক্ষকের দেওয়া ওই বিবৃতি প্রকারান্তরে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী ও প্রগতিশীল চিন্তাধারাবিরোধী তথা স্বাধীনতা বিরোধীদেরই ইন্ধন যোগানো হচ্ছে।’

বিবৃতিতে অধ্যাপক মজিবুর রহমান উল্লেখ করেন, ‘প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ মনে করে- কোনো ব্যক্তি বা গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে অভিযোগ উত্থাপিত হলে তা অনুসন্ধানপূর্বক সুরাহা করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করা উচিত। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ে চলমান দু’টি ইস্যু নিয়ে পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করার অপপ্রয়াস থেকে সবাইকে বিরত থাকার অনুরোধ জানাচ্ছি।’

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী
এই বিভাগের আরো খবর