সোমবার   ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৪ ১৪২৬   ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪১

আমার রাজশাহী
২৭

‘নতুন প্রজন্মকে তামাকের ছোঁবল থেকে রক্ষায় করতে হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

‘বর্তমান নতুন প্রজন্ম সিগারেট থেকে ভয়াবহ মাদকের নেশায় আসক্ত হচ্ছে। তাই দেশের ভবিষ্যত প্রজন্মকে সিগারেটের নেশা থেকে দূরে রাখতে না পারলে এই ব্যর্থতার দায়ভার আমাদেরকেই নিতে হবে। তাই নতুন প্রজন্মকে রক্ষার স্বার্থেই গ্রিন, ক্লিন, এডুকেশন তথা হেলদি সিটি খ্যাত রাজশাহী সিটিকে তামাকমুক্ত সিটি হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।’

শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টায় মানবাধিকার ও উন্নয়ন সংস্থা ‘এ্যাসোসিয়েশন ফর কম্যুনিটি ডেভেলপমেন্টড়-এসিডি’র উদ্যোগে এবং ১৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলরের আয়োজনে উক্ত ওয়ার্ড ‘তামাকমুক্ত ঘোষণা’ শীর্ষক ক্যাম্পেইনের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আনোয়ার হোসেন আনার এ কথা বলেন। এই ক্যাম্পেইন কর্মসূচি পালনে সহযোগিতা করছে ‘ক্যাম্পেইন ফর টোব্যাকো ফ্রি কিড্স-সিটিএফকে’।

অনুষ্ঠানে ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরও বলেন, আমরা যদি সমাজ থেকে চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী, মাদক ইত্যাদি অপকর্ম রুখতে পারে তাহলে তামাক কেন নয়? সকলের সম্মিলিত প্রয়াসে অবশ্যই আমরা পাবলিক প্লেসে ধূমপান বন্ধ করতে সক্ষম হবো। আমরা স্কুলের পাশে তামাকপণ্য বিক্রি করতে দেব না। প্রশাসন, এনজিওসহ সকলেই যদি আমাদেরকে সহযোগিতা করে তাহলে অল্প সময়ের মধ্যে অবশ্যই আমরা রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনকে তামাকমুক্ত করতে পাররো। ’

‘এন্টি টোব্যাকো মিডিয়া এলায়েন্স-আত্মা’র রাজশাহী বিভাগীয় সমন্বয়ক শরীফ সুমনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে ১৪ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা সাংবাদিক তৈয়বুর রহমান, স্থানীয় তেরখাদিয়া সকরারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক লিয়াকত কাদির কুমকুম, সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সাজের্›ট মো. মনিরুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এসিডির প্রোগ্রাম অফিসার কৃষ্ণা রাণী বিশ্বাসের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা রাখেন, সংস্থাটির তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের মিডিয়া ম্যানেজার আমজাদ হোসেন শিমুল। এসময় অন্যদের মধ্যে এসিডির প্রোগ্রাম অফিসার মো. আনোয়ার হোসেন, রাজশাহী মহানগর তামাক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমের জন্য গঠিত ইয়ূথ গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক মো. একরামুল হক, কার্যনির্বাহী সদস্য আরিফা ইয়াসমিন নিতুসহ ১৪ নং ওয়ার্ডের কর্মকর্তা কর্মচারি ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

পরে ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনারের নেতৃত্বে ১৪ নং ওয়ার্ড তামাকমুক্ত করার লক্ষ্যে ওয়ার্ড কার্যালয়ের সামনে থেকে একটি ক্যাম্পেইন বের করা হয়। ক্যাম্পেইনটি ওয়ার্ডের বিভিন্ন বাজার, হোটেল, বিভিন্ন দোকানপাট ঘুরে পূর্বের স্থানে গিয়ে শেষ হয়। ক্যাম্পেইন চলাকালীন বিভিন্ন তামাকের দোকানে তামাক কোম্পানীগুলোর আইন বহির্ভূত বিজ্ঞাপন অপসারণসহ তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন মেনে চলতে নির্দেশ দেন ওয়ার্ড কাউন্সিলর। সেই সাথে বিভিন্ন হোটেল, রেস্টুরেন্টসহ সকল ধরনের পাবলিক প্লেসে ধূমপান না করতে এলাকাবাসীকে অনুরোধ জানান তিনি।

ক্যাম্পেইন শেষে ১৪ নম্বর ওয়ার্ড তামাকমুক্ত করার উদ্যোগের অংশ হিসেবে ওয়ার্ড কাউন্সিলর তামাকবিরোধী একটি কমিটি গঠন করেন। ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আনোয়ার হোসেন আনারকে সভাপতি ও রাসিকের ১৪ নং ওয়ার্ডের সচিব মো. শাহজাহান আলীকে সাধারণ সম্পাদক করে ১৪ সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিতে অন্য সদস্যদে মধ্যে রয়েছেন, সহ-সভাপতি মহিলা কাউন্সিলর শামসুন নাহার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জনি মিয়া, সহকারি যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সার্জেন্ট মো. মনিরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক লিয়াকত কাদির কুমকুম, কোষাধ্যক্ষ স্থানীয় তেরখাদিয়া পশ্চিমপাড়া জামে মসজিদের ঈমাম মো. ইমরান আজিজ, প্রচার সম্পাদক মো. জহুরুল ইসলাম। এছাড়া কমিটিতে ছয়জনকে কার্যকরি সদস্য হিসেবে রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের মধ্যে রাজশাহী মহানগরীর পাবলিক প্লেসগুলো শতভাগ ধূমপানমুক্ত, তামাক কোম্পানিগুলোর আইন বহির্ভুত বিজ্ঞাপন অপসারণসহ পুরো মহানগরীকে তামাকমুক্ত করতে ওয়ার্ডভিত্তিক এই ক্যাম্পেইন অব্যাহত রয়েছে।

স/সা

আমার রাজশাহী
আমার রাজশাহী
এই বিভাগের আরো খবর