ব্রেকিং:
গৌরবের ৬৭ বছর পেরিয়ে ৬৮ বছরে পর্দাপন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় রাজশাহীতে করোনা আক্রান্ত বেড়ে ১ হাজার ১৭৪ জন রাবির নেপালি ছাত্র করোনায় আক্রান্ত রাজশাহীতে প্রতিদিন ৯৫ জন করে বাড়ছে করোনা আক্রান্ত রোগি রামেক হাসপাতালে আরেক লাশ ফেলে পালালেন স্বজনরা রামেক হাসপাতারে করোনায় মৃত রোগীর লাশ ফেলে পালালো স্বজনরা তানোরে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ৬ জন রাসিকের কাউন্সিলর রুহুল আমিন টুনুসহ আক্রান্ত আরও ৮৪ ঢাকা থেকে রাজশাহীতে আমবাগান দেখতে আসা সেই শিশুটি ফিরে পেলেন বাবা সাবান কিনতে বাধ্য করায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা ইন্টার্ন চিকিৎসকদের সুরক্ষাসামগ্রী দিলেন এমপি বাদশা রাজশাহীতে করোনা উপসর্গে আরও দুইজনের মৃত্যু রামেক হাসপাতালে হাইফ্লো অক্সিজেন মেশিন দিলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্ রাজশাহীতে বিসিক শিল্পনগরী-২ প্রকল্পের ভূমি উন্নয়ন কাজ শুরু রাজশাহী বিভাগে করোনায় একদিনে মৃত্যু ৭ রাজশাহীর তানোরে ভিটামিন ও জ্বরের ওষুধ উধাও! করোনায় মারা গেছেন ইমেরিটাস প্রফেসর ড. ফখরুল রাজশাহীতে একদিনে বাড়ল ৭৮ জন, মোট আক্রান্ত ৯৮৮ রাজশাহীতে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ রাজশাহীতে বৃহস্পতিবারে করোনায় আক্রান্ত হলেন যেসব মানুষ জ্বর-শ্বাসকষ্টে রাজশাহীর সাবেক ফুটবলার কিরুর মৃত্যু রাজশাহীতে করোনায় নিউ ডিগ্রি কলেজের শিক্ষকের মৃত্যু রাজশাহীর সব এলাকা রেড জোন রাজশাহী বিভাগে নতুন শনাক্ত ৪৭৫, সুস্থ ১০৭ রামেক হাসপাতাল পরিচালককে আরইউজের স্মারকলিপি রাজশাহীতে করোনা উপসর্গে অবসরপ্রাপ্ত রাবি শিক্ষকের মৃত্যু বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এমপি এনামুলের অর্থ প্রদান রামেক হাসপাতালের ৬৭ জন চিকিৎসক-নার্স-স্বাস্থ্যকর্মী আক্রান্ত মুজিববর্ষে বেকারদের জন্য আসছে বঙ্গবন্ধু যুব ঋণ প্রকল্প রাজশাহী অঞ্চলে একদিনে করোনা সংক্রমিত শনাক্ত ২১৯, মৃত্যু ৫ রাজশাহী কারাগারের ডেপুটি জেলার ও ফার্মাসিস্টসহ করোনায় আক্রান্ত ৩ বাঘায় যুবককে কুপিয়ে হত্যা, আহত ৮ রাজশাহীতে ১০ পুলিশ সদস্যসহ একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত ৮৯ পুঠিয়া বিভিন্ন ব্রান্ডের নকল কসমেটিক তৈরির কারখানার সন্ধান পবায় চোর সিন্ডিকেটের সদস্যসহ মটরসাইকেল উদ্ধার রাজশাহীতে করোনার উপসর্গে সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু রাজশাহীতে দুই ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ভোক্তা অধিদপ্তরের জরিমানা রাজশাহীতে দুই ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ভোক্তা অধিদপ্তরের জরিমানা বাংলাদেশিদের গড় আয়ু বেড়ে ৭২ বছর ৬ মাস রাজশাহীতে করোনায় পুলিশের এএসআই কালামের মৃত্যু রাজশাহীতে একদিনে ৬৯ জন শনাক্ত রাজশাহী বিভাগে নতুন মৃত্যু নেই, সুস্থ ২১৯ জন রাজপাড়া থানার ওসিসহ দুই পুলিশ সদস্য করোনা আক্রান্ত শিশু সন্তানসহ রামেক চিকিৎসক পরিবারের চার সদস্যের করোনা করোনা উপসর্গে প্রাণ গেলো রাবির রসায়ন বিভাগের ল্যাব সহকারীর পুঠিয়া থানার দুই পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত গোদাগাড়ীত সাঁন্তাল বিদ্রোহের ১৬৫তম দিবস উদযাপিত গোদাগাড়ীত সাঁন্তাল বিদ্রোহের ১৬৫তম দিবস উদযাপিত রাজশাহী বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় ২৪২ জন শনাক্ত, মৃত্যু ৭ রাজশাহী নগরীতে করোনায় ব্যবসায়ীর মৃত্যু নিয়মিত আদালত চালুর দাবীতে রাজশাহীতে আইনজীবীদের মানববন্ধন কাঁকনহাট ফাঁড়ির তিন পুলিশ কনস্টেবল সংক্রমিত আম পরিবহনে সাড়া ফেলেছে ‘ম্যাঙ্গো স্পেশাল ট্রেন’ রাজশাহী জেলা প্রশাসনের ত্রাণ তহবিলে নগদ অর্থ প্রদান চুয়েট শিক্ষার্থীর মোহনপুরে একদিনে করোনায় নতুন আক্রান্ত ১১ সুরক্ষাসামগ্রীর দাবিতে রামেক ইন্টার্ন চিকিৎসিকদের কর্মবিরতি রাজশাহীতে ২৪ ঘণ্টায় ২৬৮ জন শনাক্ত, সুস্থ ১১২ সাংবাদিক তবিবুর রহমান মাসুম আর নেই, মেয়র লিটনের শোক থেমে নেই রাসিকের স্বাস্থ্য বিভাগের নমুনা সংগ্রহের কাজ করোনায় আক্রান্তদের পরিবারের জন্য মেয়র লিটনের উপহার
  • সোমবার   ০৬ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২১ ১৪২৭

  • || ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪১

আমার রাজশাহী
সর্বশেষ:
গৌরবের ৬৭ বছর পেরিয়ে ৬৮ বছরে পর্দাপন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় রাজশাহীতে করোনা আক্রান্ত বেড়ে ১ হাজার ১৭৪ জন রাবির নেপালি ছাত্র করোনায় আক্রান্ত রাজশাহীতে প্রতিদিন ৯৫ জন করে বাড়ছে করোনা আক্রান্ত রোগি রামেক হাসপাতালে আরেক লাশ ফেলে পালালেন স্বজনরা রামেক হাসপাতারে করোনায় মৃত রোগীর লাশ ফেলে পালালো স্বজনরা তানোরে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ৬ জন রাসিকের কাউন্সিলর রুহুল আমিন টুনুসহ আক্রান্ত আরও ৮৪ ঢাকা থেকে রাজশাহীতে আমবাগান দেখতে আসা সেই শিশুটি ফিরে পেলেন বাবা সাবান কিনতে বাধ্য করায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা ইন্টার্ন চিকিৎসকদের সুরক্ষাসামগ্রী দিলেন এমপি বাদশা রাজশাহীতে করোনা উপসর্গে আরও দুইজনের মৃত্যু রামেক হাসপাতালে হাইফ্লো অক্সিজেন মেশিন দিলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্ রাজশাহীতে বিসিক শিল্পনগরী-২ প্রকল্পের ভূমি উন্নয়ন কাজ শুরু রাজশাহী বিভাগে করোনায় একদিনে মৃত্যু ৭ রাজশাহীর তানোরে ভিটামিন ও জ্বরের ওষুধ উধাও! করোনায় মারা গেছেন ইমেরিটাস প্রফেসর ড. ফখরুল রাজশাহীতে একদিনে বাড়ল ৭৮ জন, মোট আক্রান্ত ৯৮৮ রাজশাহীতে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ রাজশাহীতে বৃহস্পতিবারে করোনায় আক্রান্ত হলেন যেসব মানুষ জ্বর-শ্বাসকষ্টে রাজশাহীর সাবেক ফুটবলার কিরুর মৃত্যু রাজশাহীতে করোনায় নিউ ডিগ্রি কলেজের শিক্ষকের মৃত্যু রাজশাহীর সব এলাকা রেড জোন রাজশাহী বিভাগে নতুন শনাক্ত ৪৭৫, সুস্থ ১০৭ রামেক হাসপাতাল পরিচালককে আরইউজের স্মারকলিপি রাজশাহীতে করোনা উপসর্গে অবসরপ্রাপ্ত রাবি শিক্ষকের মৃত্যু বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এমপি এনামুলের অর্থ প্রদান রামেক হাসপাতালের ৬৭ জন চিকিৎসক-নার্স-স্বাস্থ্যকর্মী আক্রান্ত মুজিববর্ষে বেকারদের জন্য আসছে বঙ্গবন্ধু যুব ঋণ প্রকল্প রাজশাহী অঞ্চলে একদিনে করোনা সংক্রমিত শনাক্ত ২১৯, মৃত্যু ৫ রাজশাহী কারাগারের ডেপুটি জেলার ও ফার্মাসিস্টসহ করোনায় আক্রান্ত ৩ বাঘায় যুবককে কুপিয়ে হত্যা, আহত ৮ রাজশাহীতে ১০ পুলিশ সদস্যসহ একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত ৮৯ পুঠিয়া বিভিন্ন ব্রান্ডের নকল কসমেটিক তৈরির কারখানার সন্ধান পবায় চোর সিন্ডিকেটের সদস্যসহ মটরসাইকেল উদ্ধার রাজশাহীতে করোনার উপসর্গে সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু বাংলাদেশিদের গড় আয়ু বেড়ে ৭২ বছর ৬ মাস রাজশাহীতে করোনায় পুলিশের এএসআই কালামের মৃত্যু রাজশাহীতে একদিনে ৬৯ জন শনাক্ত রাজশাহী বিভাগে নতুন মৃত্যু নেই, সুস্থ ২১৯ জন রাজপাড়া থানার ওসিসহ দুই পুলিশ সদস্য করোনা আক্রান্ত শিশু সন্তানসহ রামেক চিকিৎসক পরিবারের চার সদস্যের করোনা করোনা উপসর্গে প্রাণ গেলো রাবির রসায়ন বিভাগের ল্যাব সহকারীর পুঠিয়া থানার দুই পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত রাজশাহী বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় ২৪২ জন শনাক্ত, মৃত্যু ৭ রাজশাহী নগরীতে করোনায় ব্যবসায়ীর মৃত্যু নিয়মিত আদালত চালুর দাবীতে রাজশাহীতে আইনজীবীদের মানববন্ধন কাঁকনহাট ফাঁড়ির তিন পুলিশ কনস্টেবল সংক্রমিত আম পরিবহনে সাড়া ফেলেছে ‘ম্যাঙ্গো স্পেশাল ট্রেন’ রাজশাহী জেলা প্রশাসনের ত্রাণ তহবিলে নগদ অর্থ প্রদান চুয়েট শিক্ষার্থীর মোহনপুরে একদিনে করোনায় নতুন আক্রান্ত ১১ সুরক্ষাসামগ্রীর দাবিতে রামেক ইন্টার্ন চিকিৎসিকদের কর্মবিরতি রাজশাহীতে ২৪ ঘণ্টায় ২৬৮ জন শনাক্ত, সুস্থ ১১২ সাংবাদিক তবিবুর রহমান মাসুম আর নেই, মেয়র লিটনের শোক থেমে নেই রাসিকের স্বাস্থ্য বিভাগের নমুনা সংগ্রহের কাজ করোনায় আক্রান্তদের পরিবারের জন্য মেয়র লিটনের উপহার রাজশাহী বিভাগে আক্রান্ত ৫ হাজার, মৃত্যু ৭২ রাজশাহীতে করোনায় সম্মুখযোদ্ধার ৫৩ জন আক্রান্ত রাজশাহীর চারঘাটে পদ্মার পানি বাড়ছে, আতঙ্কে মানুষ রাজশাহীতে করোনার উপসর্গে ৭ জনের মৃত্যু
৪৭৯

শরীর ও প্রকৃতিকে সুস্থ রাখতে নতুন ডায়েট

প্রকাশিত: ১৮ জানুয়ারি ২০১৯  

পৃথিবীকে রক্ষার প্রতিশ্রুতি নিয়ে একটি ডায়েট প্রস্তুত করেছেন বিজ্ঞানীরা, যা দিয়ে সামনে দশকগুলোতে একশ’ কোটিরও বেশি মানুষকে খাওয়ানো যাবে। আর এটা সম্ভব হবে আমাদের গ্রহের কোন ক্ষতি না করেই।

সামনের দশকগুলোতে কোটি কোটি মানুষের খাদ্য সরবরাহ কিভাবে করা যাবে সেটা নিয়েই এতোদিন গবেষণা করছিলেন বিজ্ঞানীরা।

আমরা যেসব খাবারে আমাদের প্লেট ভরিয়ে রাখি, সেখানে বড় ধরণের পরিবর্তন আনা দরকার বলে মনে করেন তারা।

অবশেষে তারা একটি উপায় বের করেছেন। আর সেটা হল ‘দ্য প্লানেটারি হেলথ ডায়েট’ অর্থাৎ পৃথিবী সুরক্ষায় স্বাস্থ্যকর ডায়েটের মাধ্যমে।

এই ডায়েটটি তৈরি করা হয়েছে মাংস এবং দুগ্ধজাতীয় খাবার বাদ না দিয়েই।

তবে প্রোটিন চাহিদার একটা বড় অংশ মেটাতে সেখানে বাদাম, বিভিন্ন ধরণের ডাল আর বীজ যুক্ত করা হয়েছে।

বিজ্ঞানীদের পরামর্শ হল ডায়েট থেকে মাংসের পরিমাণ কমিয়ে বিকল্প প্রোটিনের উৎস্য খোঁজা।

যেসব পুষ্টিকর খাবার আমরা এড়িয়ে যেতে চাই সেগুলোর প্রতি আগ্রহ জন্মানোর ওপরও তারা জোর দেন।

খাদ্যাভ্যাসে কী ধরনের পরিবর্তন আনতে হবে?

আপনি যদি প্রতিদিন মাংস খেয়ে থাকেন তাহলে আপনার ডায়েটে বড় ধরনের পরিবর্তন আনা জরুরি। তার মানে এই নয় যে, আর মাংসই খাবেননা। মাংস খাবেন, তবে পরিমিত হারে।

যেমন রেড মিটের কোনও খাবার যেমন বার্গার যদি খেতেই হয় তাহলে সেটা সপ্তাহে একদিন খাবেন। বড় আকারের স্টেক মাসে একবারের বেশি খাবেননা।

এছাড়া সপ্তাহের অন্য আরেকদিন মাছ বা মুরগির মাংস দিয়ে প্রোটিনের চাহিদা মেটাতে পারেন।

আর বাকি দিনগুলোতে প্রোটিনের চাহিদা মেটাতে হবে বিভিন্ন উদ্ভিদজাত খাবার খেয়ে। এক্ষেত্রে গবেষকরা প্রতিদিন বাদাম, বীজ বা ডাল খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

এছাড়া নানা ধরনের ফল এবং সবজি খাওয়া বাড়ানোর কথাও জানান তারা। যেন সেটা প্রতিবেলার খাবার প্লেটের অন্তত অর্ধেক অংশ জুড়ে থাকে।

এছাড়া শ্বেতসারযুক্ত খাবার যেমন আলু বা কাসাভাও ডায়েটে যুক্ত করা যেতে পারে।

ডায়েটের পূর্ণ তালিকা:

আপনি প্রতিদিন কোন কোন খাবার কি পরিমাণে খেতে পারবেন সেটা জেনে নিন।

১. বাদাম – দিনে ৫০ গ্রাম।

২. সিমের বিচি, ছোলা, বিভিন্ন ধরণের ডাল- দিনে ৭৫ গ্রাম।

৩. মাছ – দিনে ২৮ গ্রাম।

৪. ডিম – প্রতিদিন ১৩ গ্রাম (সপ্তাহে একটি অথবা দুটি ডিমের বেশি নয়)

৫. মাংস – লাল মাংস দিনে ১৪ গ্রাম এবং মুরগীর মাংস দিনে ২৯ গ্রাম।

৬. কার্বোহাইড্রেট অর্থাৎ শস্যজাতীয় খাবার যেমন রুটি এবং চাল দিনে ২৩২ গ্রাম খাওয়া যাবে। এছাড়া আলুর মতো অন্যান্য শ্বেতসার সবজি দিনে ৫০ গ্রাম।

৭. ডেইরি বা দুগ্ধজাত খাবার দিনে ২৫০ গ্রাম। যা কিনা এক গ্লাস দুধের সমান।

৮. শাকসবজি – দিনে ৩০০ গ্রাম এবং ফল ২০০ গ্রাম।

এছাড়া এই ডায়েটে চাইলে ৩১ গ্রাম চিনি এবং ৫০ গ্রাম তেল যেমন জলপাই তেল যোগ করা যাবে।

এগুলোর স্বাদ কি অনেক খারাপ হবে?

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক অধ্যাপক ওয়াল্টার উইলেট বলেছেন, না এসব খাবার মানেই যে স্বাদ ভাল নয়, এমনটা ভাবা ঠিক না।

তিনি নিজেও এক সময় তিন বেলা লাল মাংস খেতেন। অথচ এখন তিনি নিজেকে এই স্বাস্থ্যকর ডায়েটের আওতায় নিয়ে এসেছেন।

উইলেট বলেন, ‘খাবারের প্রচুর বৈচিত্র্য রয়েছে, আপনি হাজারো উপায়ে একটার সঙ্গে আরেকটা মিশিয়ে ওই খাবারগুলো গ্রহণ করতে পারেন। আমরা কাউকে স্বাদ থেকে বঞ্চিত করতে এই ডায়েট প্রস্তুত করিনি। বরং এমন কিছু তৈরির চেষ্টা করেছি যেটা খাওয়া সহজ এবং উপভোগ্য।’

এই খাদ্যাভ্যাস কেন প্রয়োজন?

ইট-ল্যান্সেট কমিশনের অংশ হিসাবে বিশ্বের প্রায় ৩৭ জন বিজ্ঞানীর একটি দলকে একত্রিত করা হয়। সেখানে কৃষি থেকে শুরু করে জলবায়ু পরিবর্তন সেই সঙ্গে পুষ্টি বিশেষজ্ঞরা ছিলেন।

টানা দুই বছর গবেষণার পর তারা এই ডায়েট তালিকা তৈরি করেছেন, যেটা পরবর্তীতে ল্যানসেটে প্রকাশ করা হয়।

এখন তাদের লক্ষ্য বিভিন্ন দেশের সরকার এবং ডাব্লুএইচও’র মতো সংস্থাগুলোর কাছে এই গবেষণা ফলাফল পাঠানো। যেন সব জায়গায় এই খাদ্যাভ্যাসের পরিবর্তন আনা যায়।

২০১১ সালে বিশ্বের জনসংখ্যা ৭০০ কোটিতে পৌঁছেছে এবং বর্তমানে বিশ্বের মোট জনসংখ্যা ৭৭০ কোটি।

২০৫০ সাল নাগাদ এই সংখ্যা এক হাজার কোটিতে পৌঁছাতে পারে, যা কিনা বাড়তেই থাকবে।

এই বাড়তি জনগোষ্ঠীর খাবারের যোগান নিশ্চিত করতে তারা এই গবেষনাটি করেন।

এই খাদ্যাভ্যাসের পরিবর্তন কি জীবন বাঁচাবে?

গবেষকরা বলছেন, খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তনের কারণে প্রতি বছর প্রায় এক কোটি ১০ লাখ মানুষের মৃত্যু ঠেকানো সম্ভব।

অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাসের কারণে যেসব অসুস্থতা হয়ে থাকে যেমন, হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক এবং কয়েক ধরণের ক্যান্সার, এগুলো উন্নত দেশের মানুষ মৃত্যুর সবচেয়ে বড় কারণ।

তবে সঠিক খাদ্যাভ্যাসের মাধ্যমে সেই হার অনেকটাই কমিয়ে আনা সম্ভব।

এই ডায়েট কি পৃথিবীকে রক্ষায় সাহায্য করবে?

গবেষকদের লক্ষ্য হল সামনের দশকগুলোয় বিশ্বের বাড়তি জনসংখ্যার সবার খাদ্যের যোগান নিশ্চিত করা সেটা পরিবেশের ক্ষতি না করেই। যেখানে বরং,

১ গ্রিনহাউস গ্যাস নির্গমন কমানো যাবে।

২. জৈববৈচিত্রের যেসব প্রজাতি বিলুপ্ত যাচ্ছে সেগুলো রক্ষা করা যাবে।

৩. কৃষিজমি আর বাড়াতে হবে না।

৪. পানি সংরক্ষণ করা যাবে।

তবে, শুধু খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন আনাই যথেষ্ট নয়। এক্ষেত্রে খাদ্যের ফলে সৃষ্ট বর্জ্যের হার কমিয়ে আনা সেইসঙ্গে বিদ্যমান জমিতে খাদ্যের উৎপাদন বাড়ানো জরুরি।

আমার রাজশাহী